Skip to content Skip to footer

ডিসকর্ড কেন গেমারদের ১ম পছন্দ?

ডিসকর্ড কেন গেমারদের ১ম পছন্দ?

প্রধানত গেমারদের আড্ডাখানা হলেও ডিসকর্ড কিন্তু একটি টেক্সট ও ভিডিও চ্যাট সার্ভিস, যা বিনামূল্যে যেকেউ ব্যবহার করতে পারে। যেকোনো ধরনের কমিনিউটি তৈরির দারুণ সব সুবিধা রেখে যোগাযোগের ক্ষেত্রে নতুন দৃষ্ঠান্ত স্থাপন করেছে ডিসকর্ড।

গেমাররা তাদের প্রিয় গেম খেলার সময় টিমমেট এর সাথে সহজেই যোগাযোগের সুযোগ করে দিয়েছে ডিসকর্ড। বিশেষ করে সিএস গো কিংবা লিগ অফ লিজেন্ডস এর মতো কম্পিটিটিভ গেমগুলোর ক্ষেত্রে দ্রুত ও স্পষ্টভাবে টিমমেটের সাথে ভয়েসের মাধ্যমে কানেক্টেড থাকা একান্ত জরুরি। এই প্রয়োজন পূরণ করেছে ডিসকর্ড।ডিসকর্ড বর্তমান সময়ের জন্য নতুন কোনো সার্ভিস না হলেও, ভিওআইপি, অর্থাৎ ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রটোকল সার্ভিস হিসেবে ডিসকর্ড বর্তমানে অন্যতম জনপ্রিয়। বর্তমানে শুধুমাত্র গেমাররা নয়, বরং ছোট ব্যবসা থেকে শুরু করে ইউটিউবাররা পর্যন্ত, সবাই ডিসকর্ড এর সুবিধা ভোগ করছে।

চলুন জানি ডিসকর্ড কিভাবে ব্যবহার করতে হয়, ডিসকর্ড এর বিভিন্ন ফিচার, ডিসকর্ড ব্যবহারে খরচ, ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত।

ডিসকর্ড কি? What is Discord?

ডিসকর্ড মূলত একটি টেক্সট ও অডিও/ভিডিও চ্যাট সার্ভিস, সেটা আমরা আগেই জেনেছি। স্ল্যাক, স্কাইপ ইত্যাদি অ্যাপের সুবিধা এক জায়গায় করলে অনেকটা ডিসকর্ড এর মতোই দেখাবে। প্রতিদিন ডিসকর্ডে ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রোটোকল ভিত্তিক মিলিয়নের উপর কল সম্পন্ন হয়।

ডিসকর্ড এর যাত্রা কিন্তু শুরু হয় গেমারদের কমিনিউটি তৈরির প্ল্যাটফর্ম ও কমিনিউকেট করার মাধ্যমে প্রদানের কথা মাথায় রেখে। ২০১৫ সালে যাত্রা শুরু করা ডিসকর্ড এর বর্তমান ব্যবহারকারী সংখ্যা দাড়িয়েছে ২৫০ মিলিয়নের উপর।বর্তমানে ডিসকর্ড এর প্রধান ব্যবহারকারী গেমারগণ এর পাশাপাশি প্রায় সকল স্তরের মানুষ। নিজেদের টিমমেট বা বন্ধুদের সাথে যোগাযোগের মাধ্যম হিসাবে ডিসকর্ড এর ব্যবহার সর্বত্র লক্ষ্যণীয়।

বর্তমানে চ্যাটিং এর পাশাপাশি আরো বিভিন্ন ধরনের ফিচার অফার করে আসছে ডিসকর্ড। বর্তমানে ডিসকর্ডে চ্যাটের পাশাপাশি লাইভ স্ট্রিমিং, বন্ধু বা পরিবারের সদস্যদের অ্যাড করা, এমনকি নিজের সার্ভার খুলে সেই সার্ভার এর জন্য বট ও যুক্ত করা যায়।বর্তমানে গেমারদের পাশাপাশি ইনফ্লুয়েন্সার, স্ট্রিমার, ইউটিউবারসহ ব্যবসাগুলো পর্যন্ত এর জনপ্রিয়তার জন্য ডিসকর্ড এ যুক্ত হয়েছে। ডিসকর্ড এর অসংখ্য ফিচার এর ভিড়ে সকলের জন্যই কোনো না কোনো কাজের ফিচার রয়েছেই। তাই সবার জন্যই তাদের প্রিয় ডিসকর্ড সার্ভারগুলো এক প্রিয় মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে।একটি কমিনিউটি গড়ে তোলার জন্য সকল ধরনের ফিচার অফার করছে ডিসকর্ড। খুব সহজেই মজার মাধ্যমেই বিশাল সংখ্যাক মেম্বারের সার্ভার পরিচালনা করা যায়। ডিসকর্ড মূলত এর প্রতিযোগীদের সকল ফিচার একত্র করে সেগুলোকে উন্নত করে তাদের অ্যাপে যুক্ত করে দিয়েছে।

সার্ভার

ডিসকর্ড এ প্রাইভেট চ্যাট করা গেলেও ডিসকর্ড এর প্রাণ কিন্তু সার্ভার ফিচারটি। তবে ডিসকর্ড একাউন্ট খুলেই আপনাকে নতুন সার্ভার তৈরী করতে হবে, এমন কোনো কথা নেই। ডিসকর্ড সার্ভার তৈরী করা তেমন কঠিন কোনো কাজও নয়। যেকেউ খুব সহজে ডিসকর্ড সার্ভার খুলতে পারে।

আপনি যদি মাত্রই ডিসকর্ড একাউন্ট খুলে থাকেন, তবে ইতিমধ্যেই থাকা অসংখ্য ডিসকর্ড সার্ভারের যেকোনো একটিতে ঢুকে পড়তে পারেন। ডিসকর্ড অ্যাপেই সার্চ করে কিছু উল্লেখযোগ্য সার্ভার খুঁজে পাবেন। এছাড়াও গুগল সার্চ করে আপনার পছন্দের বিষয়ভিত্তিক ডিসকর্ড সার্ভার খুঁজতে পারেন।ডিসকর্ড সার্ভার হলো মূলত একটি চ্যাট রুম, যেখানে ব্যবহারকারীগণ ভয়েস বা টেক্সট এর মাধ্যমে কমিনিউকেট করতে পারে। আপনিও চাইলে একটি সার্ভার খুলে আপনার বন্ধু, টিমমেট বা পরিবারের সদস্যদের ইনভাইট করে একটি কমিনিউটি গড়ে তুলতে পারেন।

ডিসকর্ড সার্ভার এ কমিনিউকেট এর প্রধান মাধ্যম হচ্ছে চ্যানেলসমুহ। চ্যানেলসমুহ মূলত টেক্সট ও ভয়েস চ্যানেল হিসাবে ভাগ থাকে। টেক্সট চ্যানেসমুহে শুধুমাত্র টেক্সট মেসেজ, স্টিকার, ফাইলস, ইত্যাদি পাঠানো যায়। অন্যদিকে ভয়েস চ্যানেলগুলোতে ভয়েস চ্যাটের পাশাপাশি লাইভস্ট্রিম পর্যন্ত করা যায়।ডিসকর্ড এর আসল মজা নিতে হলে আপনার নিজের কিংবা আপনার বন্ধুদের একটি সার্ভার থাকা অনেকটা আবশ্যকই বলা চলে। এছাড়াও বিভিন্ন গেম, ইউটিউব চ্যানেল, স্ট্রিমার, সফটওয়্যার এর উপর ভিত্তি করে অসংখ্য সার্ভারে জয়েন করার পথ তো খোলা থাকছেই।

ফ্রেন্ডলিস্ট

বেশিরভাগ চ্যাট রুম সার্ভিসের মতো ডিসকর্ডেও ফ্রেন্ডলিস্ট ফিচার রয়েছে। দুইজন ব্যক্তি পরস্পরকে বন্ধু হিসেবে যুক্ত করলে তারা পাবলিক চ্যানেলে ব্যতীতও নিজেদের মধ্যে প্রাইভেটে মেসেজ আদান প্রদান করতে পারবে।

সবচেয়ে সহজে ফ্রেন্ডলিস্টে কাউকে অ্যাড করার উপায় হচ্ছে কোনো সার্ভারের মেম্বারলিস্টে সার্চ করা। এছাড়াও কম্পিউটারে ডিসকর্ড অ্যাপ ব্যবহার করলে প্রতিটি সার্ভারের ডান দিকে ওই সার্ভারে একটিভ থাকা ব্যাক্তিদের তথ্য দেখানো হয়। কোনো ইউজারকে অ্যাড করতে চাইলে তার নামের উপর ক্লিক করে Add Friend এ ক্লিক করলেই হবে।অন্যসব প্ল্যাটফর্মের মত ডিসকর্ডেও কোনো ব্যক্তিকে অ্যাড করার পর তার কাছে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট এর নোটিফিকেশন পাঠানো হয়। যে ব্যক্তিকে রিকুয়েস্ট পাঠানো হয়েছে, তিনি চাইলে ইনভাইটেশন এর পাশে থাকা বাটনসমুহ চেপে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট ডিলেট বা এক্সেপ্ট করতে পারে।

আপনি যাকে অ্যাড করতে চান সে যদি কোনো সার্ভারে একটিভ না থাকে, সেক্ষেত্রে প্রত্যেক ব্যবহারকারীর জন্য বরাদ্দ ইউনিউক ইউজারনেম ব্যবহার করে খুব সহজেই কাউকে ফ্রেন্ডলিস্টে অ্যাড করা যাবে। ফ্রেন্ডরিকুয়েস্ট ওই ব্যক্তি এক্সেপ্ট করলে আপনারা একে অপরের ফ্রেন্ডলিস্টে যুক্ত হবেন।ফ্রেন্ডলিস্টে বন্ধু যুক্ত করার পর তাদের প্রাইভেটে মেসেজ করতে পারবেন। যেকোনো ব্যবহারকারীর নামের উপর ডাবল ক্লিক করলেই প্রাইভেট চ্যাট এর উইন্ডো প্রদর্শিত হয়। এছাড়াও ফ্রেন্ডলিস্টে থাকলে প্রাইভেট ভিডিও চ্যাটের পাশাপাশি কাউকে ডিসকর্ড সার্ভারেও অ্যাড করা যায় সহজেই।

লাইভ

ডিসকর্ড অ্যাপে শুধুমাত্র টেক্সট ও ভয়েস-ভিত্তিক সার্ভিস যুক্ত করে ক্ষান্ত হয়নি ডিসকর্ড কতৃপক্ষ। চাইলে ডিসকর্ড ব্যবহার করেই লাইভস্ট্রিম করা যায়। “গো লাইভ” ফিচারটি ব্যবহার করে ব্যবহারকারী যেকোনো সময় তার স্ক্রিন সার্ভারের অন্যদের সাথে শেয়ার করতে পারে। এর ফলে গেমাররা তাদের স্ক্রিন শেয়ার করার সুবিধা পাচ্ছে খুব সহজেই। যেকোনো এক্টিভিটি লাইভ করতে সার্ভারের নামের পাশে থাকা স্ট্রিম বাটনে ক্লিক করলেই হবে।স্ট্রিম বাটনে ক্লিক করার পর স্ট্রিমের কোয়ালিটি, ফ্রেম রেট, স্ক্রিন, ইত্যাদি অপশন বাছাই করতে বলা হবে। সকল সেটিংস ঠিক থাকলে লাইভস্ট্রিম চালু করতে পারেন। এই ফিচারের মাধ্যমে শুধুমাত্র গেম নয়, বরং যেকোনো কাজেই স্ক্রিন শেয়ার করা যাবে।

ডিসকর্ড নিট্রো (বা “নাইট্রো”)

বাস্তবিক পক্ষে, ডিসকর্ড কিন্তু ১০০% বিনামূল্যে ব্যবহার করা যায়। অর্থাৎ সার্ভার তৈরী করা, বন্ধু অ্যাড করা থেকে কমিনিউটি তৈরী করা পর্যন্ত সবকিছুই এক পয়সা খরচ না করেই সম্ভব ডিসকর্ড ব্যবহার করে। তবে কিছু অর্থ খরচ করে উপভোভ করা সম্ভব ডিসকর্ড এর বিভিন্ন অ্যাডিশনাল ফিচারস।

ডিসকর্ড এর পেইড সাবস্ক্রিপশন মডেল এর নাম হলো ডিসকর্ড নিট্রো। মাসিক ১০ ডলার কিংবা বার্ষিক ১০০ ডলারের বিনিময়ে ডিসকর্ড নিট্রো সাবস্ক্রিপশন কেনা যায়। ডিসকর্ড নিট্রো যেসব ব্যবহারকারী কিনে থাকেন, তারা সকল সার্ভারে এনিমেটেড স্টিকারস ব্যবহার করতে পারেন।এছাড়াও ডিসকর্ড নিট্রো সাবস্ক্রাইবারগণ বড় ফাইল আপলোড করতে পারেন, যা সাধারণ ব্যবহারীগণ পারেন না। ডিসকর্ড নিট্রো সাবস্ক্রাইবারগণ ৪কে তে স্ট্রিম করার সুবিধার পাশাপাশি সার্ভার বুস্ট করার মত সুবিধাও পেয়ে থাকেন। সার্ভার বুস্ট করলে সার্ভার এর জন্য নতুন ফিচার ব্যবহারকারীদের জন্য উন্মুক্ত হয়ে যায়। 

ডিসকর্ড ডাউনলোড

ডিসকর্ড এর সবচেয়ে অসাধারণ ব্যাপার হচ্ছে এটি যেকোনো ডিভাইসেই চালানো যায়। মোবাইল ডিভাইস থেকে উইন্ডোজ, ম্যাক, এবং লিনাক্স চালিত ডিভাইসেও ডিসকর্ড ব্যবহার করা যায়। এছাড়াও ডিসকর্ড এর সকল ফিচার ব্রাউজার থেকেও ব্যবহার করা যায়। যেকোনো ডিভাইসের জন্য ডিসকর্ড অ্যাপ ব্যবহার করতে Discord.com এ প্রবেশ করুন। এছাড়াও ব্রাউজারেও ডিসকর্ড অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন। তবে মোবাইল ডিভাইসের ক্ষেত্রে অ্যাপ ব্যবহার করে ডিসকর্ড ব্যবহারে অধিক সুবিধা পাওয়া যায়।

Sign Up to Our Newsletter

Be the first to know the latest updates

Whoops, you're not connected to Mailchimp. You need to enter a valid Mailchimp API key.

This Pop-up Is Included in the Theme
Best Choice for Creatives
Purchase Now