Skip to content Skip to footer

৬৪টি জেলায় এখন সাইবার টিনস!

শিশুদের নিরাপদ ইন্টারনেট গড়ার লক্ষ্যে সাইবার টিনস পৌছে গেছে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায়। সারা দেশে ১১টি সেক্টরের দ্বারা ৬৪টি জেলায় সাইবার টিনস তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে ।

দেশব্যাপী ১১ টি সেক্টরে কাজ করে যাচ্ছে সাইবার টিনস

বর্তমানে বাংলাদেশের প্রতিটি জায়গাতে সাইবার বুলিং এর হার উল্লেখযোগ্য ভাবে বেড়ে চলেছে। উল্লেখ, ইন্টারনেট যেমন আমাদের সব কাজকে হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে, ঠিক তেমনি এর অপব্যবহারে  বয়ে আনতে পারে  নানা অপরাধ। ছবি বিকৃত করে ভয়ভীতি দেখানো, অশ্লীল কথা বলা এবং প্রতিনিয়ত অনলাইনে কাউকে উত্ত্যক্ত করা ইন্টারনেটে এমন নেতিবাচক কর্মকান্ডই সাইবার বুলিং । সাইবার বুলিং এর প্রভাবে প্রচুর ছেলেমেয়ে মানসিকভাবে  ক্ষতিগ্রস্ত হয়। অনেক সময় তারা সামাজিকভাবে হেনস্তা হয়,এবং এই সমস্যাগুলা বাড়িতে বলতে পারে না। যার কারণে তারা আস্তে আস্তে তাদের জীবনে ভয়াবহ অন্ধকার নেমে আসে। উদাহরনসরূপ,”গত ২০১৯ সালের ৩০ আগস্ট সাইবার বুলিংয়ের শিকার হয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় পিরোজপুর ভাণ্ডারিয়ার সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী রোকাইয়া রূপা।তামিম খান নামে এক বখাটে যুবক রোকাইয়াকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল” ।এ রকম ঘটনা বাংলাদেশে প্রায় প্রতিদিনই ঘটে থাকে। ইউনিসেফের এক জরিপ অনুযায়ী, সাইবার বুলিংয়ের শিকার হওয়া ৩৬ শতাংশের বয়স ১৪ থেকে ১৫ বছর এবং ২৫ শতাংশের বয়স ১৬ থেকে ১৭ বছর। ভুক্তভোগী  কিশোর কিশোরী হওয়ায় অনেকেই নিজের মা-বাবাকেও এ ব্যাপারে কিছু জানায় না,হীনম্মন্যতায় ভোগে এবং এমনকি অনেক কিশোর কিশোরী আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।

 

সাইবার টিনস কেনো !!!

অনলাইনে প্রতিনিয়ত নিপীড়নের শিকার হওয়া বেশির ভাগ কিশোর-কিশোরীরা বিষয়টি গোপন রাখার চেষ্টা করে। ফলে তারা হীনম্মন্যতায় ভোগে, পড়ালেখা থেকে অমনোযোগী হয়ে পড়ে, আসক্ত হয় মাদকে, সব সময় নিজেকে অপরাধী মনে করে। এ সমস্যার সমাধান খুঁজতে থাকে ‘নড়াইল ভলান্টিয়ার্স’ সংগঠনের একদল তরুণ। একসময় তারা সিদ্ধান্ত নেয় এমন কিছু করার, যার মাধ্যমে সহজেই নিজের সমস্যা কথা বলতে পারবে ভুক্তভোগী কিশোর-কিশোরীরা। সাইবার টিনস-এর প্রতিষ্ঠাতা সাদাত রহমান বলেন, “আমরা একটু গবেষণা করে করে বুঝতে পারলাম যে,কিশোর-কিশোরীরা পুলিশ বা প্রশাসনকে ভয় পায়। তাই এ ধরনের সমস্যার কথা নিয়ে পুলিশের কাছে যেতে চায় না। নড়াইল জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন পিপিএম (বার)-এর সঙ্গে দেখা করে তাঁকে বলি, ‘আমরা এমন একটি ওয়েবসাইট বানাতে চাই, যেখানে কোনও কিশোর-কিশোরী সাইবার বুলিংয়ের শিকার হলে অভিযোগ করতে পারবে। সেই অভিযোগের সূত্র ধরে পুলিশও তাদের সাহায্য করতে পারবে। যার ভিত্তিতে সাইবার টিনস প্রতিষ্ঠা করা হয়

 

যার তাফলশ্রতিতে সাইবার নিরাপত্তার অংশ হিসেবে সাইবার টিনসের কার্যক্রমের জন্য সাদাত রহমান, প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে “আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার” অর্জন করেন। ২০২০ সালের ১৭ নভেম্বর নেদারল্যান্ডসের হেগ শহরে আয়োজিত সম্মেলন “কিডস রাইটস ফাউন্ডেশন”  সাদাত রহমানকে, পুরস্কৃত করার পাশাপাশি তাকে তরুণ চেঞ্জমেকার” এবং “সমাজ সংস্কারক” হিসেবে উল্লেখ করে।

বর্তমানে বাংলাদেশকে সাইবারবুলিং মুক্ত ঘোষণা করার লক্ষ্য নিয়ে সাইবার টিনস দেশব্যাপী ১১টি সেক্টরে কাজ করছে। এই সেক্টরগুলার মাধ্যমে সাইবার টিনস তাদের কার্যক্রম আরও শক্তিশালী করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। এবং এই কার্যক্রমের মাধ্যমে সাইবারবুলিং এর সচেতনতা বাড়াতে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে।

সাইবার টিনসের সেক্টর ভিত্তিক জেলাগুলো নিচে প্রদর্শন করা হল:

 

                                                              সেক্টর-১ঃ 

                                       চট্টগ্রাম                                    খাগড়াছড়ি

                                      কক্সবাজার                               রাঙ্গামাটি

                                       ফেনী                                       

 

                                                              সেক্টর-২ঃ

 

                                       লক্ষ্মীপুর                                   নোয়াখালী

                                      ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া                              চাঁদপুর

                                      কুমিল্লা

 

                                                               সেক্টর-৩ঃ 

                              হবিগঞ্জ                                            সুনামগঞ্জ

                              সিলেট                                        মোল্ভীবাজার

 

                                                                সেক্টর-৪ঃ 

 

                                                                    ঢাকা

 

                                                                  সেক্টর-৫ঃ 

 

                           মুন্সীগঞ্জ                                       নারায়ণগঞ্জ

                           নরসিংদী                                       গাজীপুর

 

                                                                 সেক্টর-৬ঃ 

 

                          দিনাজপুর                                            গাইবান্ধা

                          কুড়িগ্রাম                                           লালমনিরহাট

                          নীলফামারী                                          পঞ্চগড় 

                          রংপুর                                                 ঠাকুরগাঁও

 

                                                               সেক্টর-৭ঃ 

 

                            বগুড়া                                                    জয়পুরহাট 

                           নওগাঁ                                                         নাটোর 

                           চাঁপাই নবাবগঞ্জ                                           পাবনা 

                           রাজশাহী                                                  সিরাজগঞ্জ

 

                                                             সেক্টর-৮ঃ 

 

                           বাগেরহাট                                                 চুয়াডাঙ্গা  

                           যশোর                                                      ঝিনাইদহ 

                           খুলনা                                                         কুষ্টিয়া 

                           মাগুরা                                                    মেহেরপুর 

                           নড়াইল                                                    সাতক্ষীরা

 

                                                           সেক্টর-৯ঃ

 

                          বরগুনা                                                     বরিশাল 

                           ভোলা                                                      ঝালকাঠী 

                          পটুয়াখালী                                               পিরোজপুর

 

                                                          সেক্টর-১০ঃ 

 

                            ফরিদপুর                                                  রাজবাড়ী 

                            গোপালগঞ্জ                                              মাদারীপুর 

                            শরীয়তপুর

 

                                                          সেক্টর-১১ঃ 

 

                           ময়মনসিংহ                                          জামালপুর 

                            শেরপুর                                                 নেত্রকোনা

Sign Up to Our Newsletter

Be the first to know the latest updates

Whoops, you're not connected to Mailchimp. You need to enter a valid Mailchimp API key.

This Pop-up Is Included in the Theme
Best Choice for Creatives
Purchase Now